আবুল হাশেম স্টাফ রিপোর্টারঃ

র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) প্রতিষ্ঠাকালীন সময় থেকেই দেশের সার্বিক আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সমুন্নত রাখার লক্ষ্যে সব ধরণের অপরাধীকে আইনের আওতায় নিয়ে আসার ক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। র‌্যাব জঙ্গি, সন্ত্রাসী, সংঘবদ্ধ অপরাধী, মাদক, অস্ত্রধারী অপরাধী, ভেজাল পণ্য, ছিনতাইকারী, প্রতারক ও হ্যাকারদের বিরুদ্ধে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে আসছে।

এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-৫, রাজশাহীর সিপিএসসি, মোল্লাপাড়া ক্যাম্পের একটি আভিযানিক দল ২৯ মে ২০২৪ তারিখ ভোর ০৪.৩০ ঘটিকায় রাজশাহী জেলার বাঘা থানাধীন আলাইপুর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে (ক) ১০ টি ওয়ান শুটারগান, (খ) ০১ টি মোবাইল, (গ) ০২ টি সীমকার্ডসহ ০১ জন শীর্ষ অস্ত্র ব্যবসায়ী ১। মোঃ আব্দুর রশিদ ব্যাপারী (৩৬), পিতা-মোঃ আইনুল ব্যাপারী, সাং-পাঁকশী (গার্ড ব্যাংক পাড়া), থানা-ঈশ্বরদী, জেলা-পাবনা ‘কে গ্রেফতার করা হয়।

গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-৫, রাজশাহীর সিপিএসসির একটি চৌকস আভিযানিক দল জানতে পারে যে, ধৃত আসামী রাজশাহী জেলার বাঘা থানাধীন আলাইপুর (নাপিতপাড়া) গ্রামস্থ তার শ্বশুর বাড়ীতে (জনৈক মোঃ এখলাস (৫০), পিতা-মৃত মোবারক মন্ডল) বিপুল পরিমান মাদকসহ অবস্থান করছে। উক্ত সংবাদ পেয়ে র‌্যাবের আভিযানিক দল উক্ত বাড়ীতে পৌছে ধৃত আসামীকে আটক করে এবং বসতবাড়ী তল্লাশী করে বড় টিনের বাক্সের ভিতর হতে কসটেপ ও পলিথিনে মোড়ানো অবস্থায় ১০ টি ওয়ান শুটারগান উদ্ধার করে।

আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, সে একজন কুখ্যাত অস্ত্র ব্যবসায়ী। সে পেশায় একজন প্রাইভেট চালক। নিজ পেশার আড়ালে দীর্ঘদিন যাবত সীমান্তবর্তী অজ্ঞাত স্থান হতে অস্ত্র-গুলি সংগ্রহ করে নিয়ে রাজশাহীসহ তার নিজ এলাকার অজ্ঞাত অস্ত্র ব্যবসায়ীদের নিকট বিক্রয় করে আসছিল। তাছাড়া সে একজন এলাকার চিহ্নিত মাদক সম্রাট। উক্ত অস্ত্র প্রদর্শনের মাধ্যমে এলাকায় নিজ আধিপত্য বিস্তার করে মাদক ব্যবসাসহ অরাজকতা সৃষ্টির লক্ষ্যে নিজের দখলে রেখেছিল। ইতিপূর্বে মাদক ব্যবসার কারণে একাধিকবার আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর নিকট অবৈধ মাদকদ্রব্যসহ ধৃত হয়।

সাম্প্রতিককালে উত্তরবঙ্গে এটিই অবৈধ অস্ত্রের সবচেয়ে বড় চালান আটক করা হয়েছে। উক্ত আসামীকে গ্রেপ্তারের মাধ্যমে অস্ত্র অভিযানের ক্ষেত্রে “”Zero Tolerance” ” নীতি অব্যাহত থাকবে।

উক্ত আসামীর বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে রাজশাহী জেলার বাঘা থানায় মামলা রুজুর কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।