এম ডি বাবুল সি:বি:প্রতিনিধি

র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম বিশেষ সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারে যে, চট্টগ্রাম মহানগরীর কোতোয়ালী থানাধীন ইকবাল রোডস্থ পুরাতন ফিশারী ঘাট এলাকার একটি টিনশেড ঘরের ভিতর কতিপয় ব্যক্তি মাদকদ্রব্য মজুদ করে বিক্রয় করছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে গত ২৬ এপ্রিল ২০২৪ইং তারিখ র‌্যাব-৭, চট্টগ্রামের একটি আভিযানিক দল বর্ণিত এলাকায় পৌছালে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে কতিপয় ব্যক্তি দৌড়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টাকালে র‌্যাব সদস্যরা আসামি ১। বিকাশ দাস (৩৭), পিতা- শম্ভু দাস, সাং- মনোহর কালি ইকবাল রোড, থানা- কোতোয়ালী, চট্টগ্রাম, ২। আব্দুল মান্নান (৫০), পিতা- মৃত নয়া মিয়া, সাং- নলী চরগাছিয়া থানা- বরগুনা সদর, জেলা- বরগুনা, এ/পি- বগার বিল শান্তি নগর, মৌসুমী আবাসিক এলাকা, থানা- চকবাজার, চট্টগ্রাম, ৩। মোঃ জসিম উদ্দিন (৫২), পিতা- মৃত মমিন উল্লাহ, সাং- ভবানী জীবনপুর থানা-বেগমগঞ্জ, জেলা- নোয়াখালী, এ/পি- ডাঙ্গারচর, থানা- কর্ণফুলী, চট্টগ্রাম’দের আটক করতে সক্ষম হয়। পরবর্তীতে উপস্থিত সাক্ষীদের সামনে আটককৃত আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদে নিজ মুখে স্বীকারোক্তি এবং তাদের নিজ হাতে বের করে দেয়া মতে ১৮টি বস্তার মধ্যে ২০০ টি প্লাষ্টিকের বোতলে রক্ষিত অবস্থায় সর্বমোট ৩৫০ লিটার চোলাই মদ উদ্ধারসহ আসামিদের গ্রেফতার করা হয়।
গ্রেফতারকৃত আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদে আরও জানা যায়, তারা পরস্পর যোগসাজশে দীর্ঘদিন যাবৎ বিভিন্ন কৌশলে মাদকদ্রব্য স্বল্প মূল্যে সংগ্রহ করতঃ মজুদ করে পরবর্তীতে চট্টগ্রাম মহানগরীরসহ জেলার বিভিন্ন মাদক ব্যবসায়ী ও মাদক সেবনকারীদের নিকট অধিক মূল্যে বিক্রয় করে আসছে। উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্যের আনুমানিক মুল্য ২ লক্ষ টাকা।

গ্রেফতারকৃত আসামি এবং উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্য সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে চট্টগ্রাম মহানগরীর কোতোয়ালী থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।