শেখ খায়রুল ইসলাম:-শনিবার সকালে কপিলমুনিতে অনুষ্ঠিত মহাবারুণী স্নান উৎসব পরিদর্শন করেন, খুলনা-৬,পাইকগাছা-কয়রার এমপি মোঃ রশীদুজ্জামান। কপিলমুনি ইতিহাস ঐতিহ্যের লীলাভূমি কপিলেশ্বরী কালীঘাটে এ স্নান উৎসব অনুষ্ঠিত হয়। এসময় দুর-দুরান্ত থেকে শত শত সনাতন ধর্মাম্বলীরা এ স্নান উৎসবে সমাবেত হন। ব্যাপক লোক সমাগমের ফলে পূর্বের ন্যায় আবারো কপিলমুনি মাহাবারুণী স্নানে ফিরেছে ভিন্নমাত্রা। তাই শত ব্যস্ততার মাঝেও এমপি রশীদুজ্জামান সিয়াম সাধনার মাসে রোজারেখে নাড়ির টানে ছুটে আসেন চিরচেনা কপোতাক্ষ তীরবর্তী কপিলেশ্বরী কালীঘাটে মহাবারুণীর স্নান উৎসবে। এসময় মুন্সী রেজাউল করিম মহব্বতের দোকান সম্মুখে বসে প্রায় দু’ঘন্টার অধিক সময় ধরে আগত সনাতন সম্প্রদায়ের মানুষের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন তিনি। এসময় উপস্থিত ছিলেন, পাইকগাছা উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক আনন্দ মোহন বিশ্বাস, কপিলমুনি ইউপি চেয়ারম্যান কওছার আলী জোয়ার্দ্দার, কপিলমুনি প্রেসক্লাবের সভাপতি জি এম হেদায়েত আলী টুকু, সহ-সভাপতি মুন্সী রেজাউল করিম মহব্বত, কপিলমুনি পুলিশিং কমিটির সভাপতি সাধন কুমার ভদ্র, আলহাজ্ব অহিদুজ্জামান মোড়ল, কপিলমুনি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কোষাধক্ষ্য বিধান চন্দ্র ভদ্র, কপিলমুনি বণিক সমিতির সদস্য সচিব এম মাহমুদ আসলাম, সরদার মোজাফ্ফর হোসেন, রাম প্রসাদ পাল, কৃষ্ণপদ মন্ডল, জগদীশ দে, হিমাদ্রী শেখর দে, প্রভাষক কামাল হোসেন, অলোক মজুমদার, বিপ্লব সাধু, প্রদীপ দত্ত, বিষ্ণু কর্মকার, পবিত্র সাধু, দিলীপ দে, ছাত্রলীগ নেতা মৃণাল কান্তি বাছাড়, হাফিজুর রহমান, তৈয়বুর হোসেন রকি, সীমান্ত রায়, আসলাম হোসেন, জি এম হাবিবুর রহমান ও মোঃ জাকির হোসেন প্রমুখ।