আনোয়ারা(চট্টগ্রাম)প্রতিনিধি

তীব্র গরমে চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলা হাসপাতালে রোগীদের দুর্ভোগ লাঘবে ৩০ কেবি ক্ষমতাধারণ জেনারেটর দিয়েছেন স্থানীয় সাংসদ ও সাবেক ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ এমপি। শনিবার (২৭ এপ্রিল) দুপুরে আনোয়ারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তাঁর সচিব রিদ্ওয়ানুল করিম চৌধুরী সায়েম হাসপাতালের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মামুনুর রশিদের কাছে এ জেনারেটরটি হস্তান্তর করেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. ইশতিয়াক ইমন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক এম.এ মান্নান চৌধুরী, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের সদস্য এস.এস আলমগীর, যুগ্ম সম্পাদক নোয়াব আলী চেয়ারম্যান, সুগ্রীব মজুমদার, সাহাবুদ্দিন, ছগীর আজাদ, চেয়ারম্যানদের মধ্যে এম.এ কাইয়ূম শাহ্, কলিম উদ্দিন, সাবেক চেয়ারম্যান মো. শাহদাত হোসেন চৌধুরী, শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সৈয়দ, বারখাইন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, যুবলীগের আহবায়ক শওকত ওসমান প্রমুখ।
পরে তিনি আনোয়ারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দায়িত্বরর্ত চিকিৎসক ও স্থানীয় সাংবাদিকদের সঙ্গে হাসপাতালের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে মতবিনিময় করেন। সভায় রিদ্ওয়ানুল করিম চৌধুরী সায়েম বলেন, ‘আনোয়ারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনাকালীন সময়েও রোগীদের জন্য অক্সিজেন সেবাসহ বিভিন্ন ধরণের সহযোগিতা করেছেন সাবেক ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ এমপি মহোদয়। এরই ধারাবাহিকতায় গরমের তীব্রতা ও লোডশেডিংয়ে রোগীদের কথা চিন্তা করে ৩০ কেবি ক্ষমতাধারণ জেনারেটর উপহার দিয়েছেন তিনি। এছাড়াও হাসপাতালে আগাত রোগীদের জন্য পাবলিক টয়লেট, নিরাপদ পানির ওয়াটার ট্রিটম্যান্ট প্লান্ট স্থাপন করা হবে। এ হাসপাতালকে ৫০ শয্যা থেকে ১০০ শয্যায় উন্নীতকরণের কাজও শীঘ্রই শুরু হবে।
হাসপাতাল ও সূত্র জানায়, ২০১৮ সালে হাসপাতালে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ ব্যবস্থা নিশ্চিতে ৫ লাখ টাকায় কেনা ১০ কেবি জেনারেটরটি একদিনের জন্যও চালু করতে পারেনি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ফলে আনোয়ারা, কর্ণফুলী, বাঁশ-খালী, চন্দনাইশনসহ বিভিন্ন স্থান থেকে আসা লক্ষাধিক রোগীরা ভুগেছেন দুর্ভোগে। তীব্র গরম ও বিদ্যুৎ সমস্যায় হাসপাতালে ভর্তি রোগী ও তাদের স্বজনদের দুর্ভোগ লাঘব হবে এমপির এ জেনারেটর।